মোটা টাকার মাইনে নয়! UPSC চতুর্থ স্থান অধিকারী হয়েও দেশ সেবার জন্য ভারতীয় সেনায় যোগ দিতে চান শুভম

ইউপিএসসি তে চতুর্থ স্থান অধিকার করেও দেশ সেবায় ব্রতী হতে চান শুভম সিনহা। বড় কোনো কর্পোরেট সংস্থায় মোটা মাইনের চাকরি পেতেই পারতেন তিনি। সে’নাবা’হিনীর কঠোর শৃঙ্খলা ও নিয়মানুবর্তিতার মধ্যে দিয়ে জীবন যাপন করার পথ বেছে নিলেন শুভম।

বিলাসিতা জীবন কাটানর থেকে দেশ সেবায় নিয়োজিত থাকতে বেশি পছন্দ তার। তার এই সিদ্ধান্তকে কুর্নিশ জানিয়েছে দেশবাসী। লাভলি প্রভেশনাল ইউনিভার্সিটির স্কুল অব ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড ইলেকট্রিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং থেকে বি.টেক পাশ করেছেন শুভম সিনহা।

ইলেকট্রিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়াশোনা করেছেন তিনি। ক্যাম্পাসিংয়ে কর্পোরেট সংস্থাতে যোগ না দিয়ে সিভিল সার্ভিসের পরীক্ষায় বসার সিদ্ধান্ত নেন শুভম।

শুভম জানান, সিভিল সার্ভিস পরীক্ষা দিয়ে দেশের জন্য কাজ করার ইচ্ছা ছিল তার। ভারতীয় সে’না’বা’হিনী আয়োজিত ইউপিএসসি সিডিএস-২ ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের টেকনিকাল বিভাগে পরীক্ষা দেন তিনি।

কঠিনতম সেই পরীক্ষায় চতুর্থ স্থান অধিকার করেন শুভম। এমন মেধা নিয়ে তিনি যে অন্য কোনো বড় কর্পোরেট সংস্থায় চাকরি পেতে না তেমনটা নয়। কিন্তু সব ছেড়ে ভারতীয় সে’না’য় যোগদান করতে চলেছেন তিনি।

ইউপিএসসি সিডিএস ২ এর টেকনিক্যাল বিভাগে প্রথম দশে থাকার পাশাপাশি ইন্ডিয়ান ন্যাভাল অ্যাকাডেমির পরীক্ষায় সারা দেশে শুভমের স্থান ১৯ নম্বরে। ইন্ডিয়ান মিলিটারি অ্যাকাডেমির পরীক্ষাতেও ৪৮ নম্বর স্থানে শুভম।

শুভম জানিয়েছেন,”লাভলি প্রফেশনাল ইউনিভার্সিটির অধ্যাপকদের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। তাঁরা পাশে না থাকলে এতটা পথ চলা সহজ হত না। এই সাফল্যের কৃতিত্ব আমার বিশ্ববিদ্যালয় ও অধ্যাপকদের।”

স্কুল জীবন থেকে এনসিসি করতেন শুভম। তার ইচ্ছা ছিল ভারতীয় বাহিনীর ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের টেকনিক্যাল উইংয়ে যোগ দেওয়া। শুভমের পরিবার জানিয়েছে, সে’নাবা’হিনীর স্পেশাল ফোর্সে কাজ করার ইচ্ছা ছিল শুভমের। এতদিনে তার ইচ্ছা পুরণ হতে চলেছে।