পিছন থেকে আসছিল সা’পটি, দেখতে পাননি রেল কর্মী, ফোঁ’স করতেই ঘটল বি’পত্তি, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায় প্রতিদিনই নানারকম ভিডিও ভাইরাল হয়ে থাকে। তার মধ্যে কোনটি বেশ ম’জার হয়, কোনটি শি’ক্ষামূলক,

বা কিছু ভিডিও সত্যিই আমাদের অ’বা’ক করে দেয়। মানুষের সাথে সাথে প’শুপা’খি’রাও পিছিয়ে নেই এই দৌড়ে। তাদের মজার ভিডিও আমাদের অত্যন্ত আ’ন’ন্দ দেয়।

কিন্তু কিছু কিছু ভিডিও সত্যিই দেখলে শি’হ’রি’ত হতে হয়। ভারতীয় রেলওয়ে কর্মরত নানা গ্রুপ ডি স্টাফ, লাই’ন্সম্যান,

পয়ে’ন্টসম্যা’ন প্রভৃতি প’জি’শনে কর্মরত মানুষদের আমরা কাজ করছে দেখি। সামান্য পারি’শ্রমিকের বিনিময়ে তারা প্রতিনিয়ত দিনরাত

পরিশ্রম করে আমাদের রেলের সব কিছু সুযোগ-সুবিধা দান করেন। এমনকি তাদের প্রা-‘ণ বা-‘জি রেখে এসব কাজ করতে হয় তথ্য, রয়ে যায় আমাদের কাছে অজানা।

রকমই একজন রেলের কর্মী হলেন কুমা’রান। প্রায় অনেক জায়গাতেই তিনি কাজ করেছেন, কার কাছ থেকে শোনা গেল তার জীবনের এক রো’-ম’হ’র্ষক অভি’জ্ঞতার কথা।

একদিন তিনি ডিউটিতে থাকাকালিন দেখেন লাইনের উপর থেকে একটি সা”প আসছে। সাপটি দ্রু’ত ফ”ণা তুলে এগিয়ে আসছে এবং সা”প’টি খুবই বি”ষধ”র।

সেই সময় তিনি যদি লাইনে ট্র্যাক চে’ঞ্জ করে দিতেন, তাহলে তিনি প্রাণে বেঁ–‘চে যেতে পারতেন, কিন্তু এরপরে ট্রেনের লক্ষ লক্ষ মানুষ মা*–‘রা যেতে পারত।

শেষ পর্যন্ত তিনি ঠিক করলেন সা’পটি তাকে দং’শন করলে তার একার প্রা’-‘ণ যাবে কিন্তু তিনি লাইনে ট্র্যাক চেঞ্জ করলে লাখ লাখ মানুষের মৃ*-‘*-‘ত্যু হবে।

তাই তিনি ট্র্যাক চে’ঞ্জ করেননি। ঈশ্বরের দয়ায় সা’পটি নিজে থেকেই ট্রেন আসার শব্দ চলে যায় এবং তিনিও প্রা’–‘ণে বেঁ’–‘চে যান এবং লাখ লাখ মানুষ বেঁ-‘-চে যায়।

কুমারনের নিজের প্রা”-ণ বা-”জি রেখে ওই কাজ সারা ভারতবাসীকে করেছে মু”-গ্ধ। সারা ভারতবাসীর তাকে স্যা’লুট জানিয়েছেন।

তার মত এরকম লক্ষ্য লক্ষ্য মানুষ আছেন যারা নিজের প্রা’–‘ণ বা”-জি রেখে শুধুমাত্র দেশের জন্য কাজ করেন, কিন্তু তাদের এই সব কাজগুলি আমাদের চো”খের আ’ড়ালেই থেকে যায়।

ভিডিওটি পো-”-স্ট করা হয়েছে টেকনিক্যাল ডিপা’র্ট’মেন্ট নামে এক অ’ফি’শিয়াল ইউ’টি’উব চ্যা’নেল থেকে। হাজার হাজার মানুষ ভিডিওটিতে লা-‘ই-‘ক করেছেন এবং শে’-য়া’র করেছেন।

ক’-মে’-ন্টে প্রতিটি মানুষ তাকে স্যা’লু’ট জানিয়েছেন। তাদের মত লক্ষ লক্ষ মানুষের জন্যেই আজো আমাদের ভারত মা রয়েছেন নি’-রা’-‘প-‘দ।