জীবনটা আনন্দে কাটানোর জন্য কি করতে চেয়েছিলেন সুশান্ত, অধুরাই থেকে গেল ইচ্ছা, আবেগময় ভিডিও ভাইরাল

মুম্বাইয়ের আইআইটি তে গিয়ে জীবন আনন্দে কাটাবার জন্য কি করতে চেয়েছিলেন সুশান্ত, সেই কথা জানিয়েছিলেন তিনি।

সেদিন সুশান্তকে ঘিরে সকলের উচ্ছ্বাস ছিল চোখে পড়ার মতো। এইতো ২০১৬ সালের কথা। অথচ আজ সুশান্ত সিং রাজপুত আমাদের মধ্যে নেই।

চিরতরে বিলীন হয়ে গিয়েছেন তিনি কিন্তু তাঁর স্মৃতি আজও চির অমলিন। মানুষ চলে গেলেও তার স্মৃতি গুলো সব সময় আমাদের মনের মনিকোঠায় স্থান পায়।

সুশান্ত সিং রাজপুত এমন একজন মানুষ যার স্মৃতি নিয়ে এখনো মেতে রয়েছে তারই অনুগামীরা। বক্তৃতার রাখতে স্টেজে উঠে সুশান্ত বলেছিলেন,

“যদি আমি ভুল হয়ে যাই তবে আমাকে ক্ষমা করুন যদি আমি কোন ধারণা না করি তবে আমাকে ক্ষমা করুন। যদি এখনই প্যা-‘নিক অ্যা-‘টাক হয় তবে আমাকে ক্ষমা করবেন।

তবে আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করব”। এবার প্রশ্ন হতেই পারে যে, এই বক্তৃতার বিনিময়ে কি পেয়েছেন তিনি? পেয়েছেন সেখানে উপস্থিত জনগণের ভালোবাসা।

সেখানকার ছেলেমেয়েদের বলতে শোনা গিয়েছিল “যাই হোক আমরা তোমাকে ভালোবাসি”। এদিন সুশান্ত সিং রাজপুত আরোও বলেন,

“আমি অভিনেতা হয়েছি কারণ আমার সমস্যা ছিল। আমি খুব অন্তর্মুখী ছিল। আপনারা জানেন আমি আমার পরিবারের মধ্যে কনিষ্ঠ।

এবং আমি আমার বাড়িতে এতই অস্পষ্ট হয়ে পড়েছিলাম যে যখন আমি বেরিয়ে আসতাম, তখন জনগণের সাথে কীভাবে আচরণ করা যায় তা আমি জানতাম না।

তাই ধীরে ধীরে এই খুব লাজুক অ-‘ন্তর্মুখী বা-‘চ্চা হয়ে গেছিলাম। যে ভালো কথা বলতে পারে না। আমি এখনও কথা বলতে পারি না।”

সুশান্ত সিং রাজপুত আরো জানান, “মঞ্চে যু-‘দ্ধ করতে হয়। আমি এই সমস্ত আক-‘র্ষণীয় চরিত্রের আড়ালে আছি এবং পরে আমি আ-‘ত্মবিশ্বাসী হই।

তবে এখন আমি অভিনয় করছি না। আমি আমার জার্নি আর শিক্ষা তোমাদের সকলের সাথে শেয়ার করে নিতে চাই।” এরপর থেকেই ছাত্রজীবন থেকে

বলিউডের জগতে কিভাবে এলেন সেই নিয়ে বিস্তারিত বিবরণ দিয়েছেন সুশান্ত সিং রাজপুত। তার মজার কথাতে যেমন সকলে হেসেছে,

একইভাবে তার জীবনের চড়াই-উৎরাইয়ের কথা শুনে সকলে অভিভূত হয়েছে। সুশান্ত এদিন জানান যে, তিনি গাড়িতে আসতে আসতেই

চিন্তা ভাবনা করছিলেন যে আজ মঞ্চে তিনি ঠিক কি বলবেন। সুসান সিং রাজপুত এর এইসকল কথাগুলি থেকে বোঝা যায় যে,

তিনি ঠিক কতটা বাস্তব বুদ্ধি সম্পন্ন মানুষ ছিলেন। তাহলে সত্যিই কি এই মানুষটা আ-‘ত্ম-‘হ-‘ত্যা করে নিজের জীবনটাকে শে-‘ষ করে দিতে পারে?

সেই প্রশ্নই এখনো থেকে গিয়েছে। কোন সদুত্তর এখনো পর্যন্ত কেউ দিতে পারেনি। গত ১৪ ই জুন বা-‘ন্দ্রার তাঁর নিজেরই অ্যা-‘পা-‘র্টমেন্টে সুশান্ত সিং রা-‘জপুতের ঝু-‘লন্ত দে-‘হ আবিষ্কৃত হয়।

সেই থেকে মুম্বাই পুলিশের ওপর ভরসা না করে তদন্ত চলে যায় সিবি-‘আইয়ের হাতে। সেখান থেকে উঠে আসে মা-‘দ-‘ক চ-‘ক্রের সন্ধান।

নাম জড়িয়ে যায় বড় বড় অভিনেতা অভিনেত্রীদের। আজ অবশ্য তাঁরা স্ব-‘চ্ছন্দে জী-‘বনযাপন করছেন। মা-‘ঝখান থেকে হারিয়ে গেল একজন প্রতিভাবান অভিনেতা।

“ব্রু-‘ট ইন্ডিয়া” নামক একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে সুসান সিং রাজপুতের ভাষণ দেওয়ার এই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সাড়ে ৫ মিলিয়ন দর্শক ইতিমধ্যে ভিডিওটি দেখে নিয়েছে।