অবসর সময়ে মাছ ধরা এবং সেলাই করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, মুহূর্তে ভাইরাল শেখ হাসিনার ছবি

কর্মব্যস্ততার মাঝে একটু অবসর। সেটুকু সময় হয়তো একেবারেই নিজের থাকে। সারাদিনের মাঝে কর্ম ব্যস্ততা কাটিয়ে এতটুকুও সময় পেলে মানুষ হাতছাড়া করেন না।

অন্যান্য দেশের রাষ্ট্রের প্রধান মন্ত্রীদের মতো সারা দিনে প্রচন্ড কর্ম ব্যস্ততার মধ্যে দিন কাটাতে হয় বাংলাদেশের রাষ্ট্রপ্রধান শেখ হাসিনাকে। কিন্তু সেখান থেকে এতবার অবসর মিললেই মাছ ধরা কিংবা সেলাই করা তাঁর সবচেয়ে পছন্দের কাজ। সুযোগ পেলে রান্নাবান্না করেন তিনি।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দুটি ছবি বর্তমানে সোশ্যাল-মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হয়েছে। একটি ছবিতে দেখা গিয়েছে, তিনি বড়শি দিয়ে মাছ ধরছেন। অন্য ছবিটিতে দেখা গিয়েছে তিনি সেলাই মেশিনের মাধ্যমে সেলাই করতে ব্যস্ত।

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান শনিবার সন্ধ্যায় তাঁর ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে ছবি দুটি পোস্ট করেন।

ক্যাপশনে লেখেন,” প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন পরিপূর্ণ মানুষ। তিনি সফলভাবে ১৭ কোটি বাংলাদেশির ভাগ্য পরিবর্তন করেছেন। ১০ লক্ষের বেশি রোহিঙ্গা মুসলিমকে আশ্রয় দিয়েছেন। এত কিছুর মাঝেও তিনি অবসর সময়ে রান্না করা, মাছ ধরা আর সেলাই উপভোগ করেন”।

শেখ হাসিনার এই ছবি যখন ভাইরাল, চারিদিকে আলোচনার প্রকটতা যখন তুঙ্গে তখন সামনে এলো এক অন্য বিষয়। জানা গেছে,বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অ্যান্টিমাইক্রোবায়াল রেজিস্টেন্স সংক্রান্ত গ্রুপের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন।

বার্বাডোসের প্রধানমন্ত্রী মিয়া আমোরের সঙ্গেই অ্যান্টিমাইক্রোবায়াল রেজিস্টেন্স সংক্রান্ত ওয়ান হেলথ গ্লোবাল লিডার্স গ্রুপের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। শুক্রবার এই কথা ঘোষণা করা হয়েছে যে, আগামী তিন বছরের জন্য শেখ হাসিনাকে সভাপতির দায়িত্ব পালন করতে হবে।

অ্যান্টিমাইক্রোবায়াল রেজিস্টেন্স সংক্রান্ত ওয়ান হেলথ গ্লোবাল লিডার্স গ্রুপ গঠন করা হয়েছিল,অ্যান্টিমাইক্রোবায়াল রেজিস্টেন্স সংক্রান্ত ইন্টার এজেন্সি কো-অর্ডিনেশন গ্রুপের সুপারিশ ও জাতিসংঘ মহাসচিবের সমর্থনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, খাদ্য ও কৃষি সংস্থা এবং পশু স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বিশ্ব সংস্থার যৌথ উদ্যোগে।