সাদা-কালো জামানার সৌরভ-ডোনার প্রেম কাহিনী হার মানাবে সিনেমার গল্পকেও

বাঙালিদের কাছে ক্রিকেটের মহারাজ মানেই সৌরভ গাঙ্গুলী। অবশ্য সৌরভ নামটি ছাড়াও একাধিক নাম আছে তার, কেউ দাদা তো কেউ প্রিন্স অফ কলকাতা,

নাম চেনেন তাঁকে। ক্রিকেটের ময়দানে নিজের অসাধারণ খেলা দিয়ে মন্ত্রমুগ্ধ করেছেন তিনি আপামর বাংলীদের। খেলার মাঠ থেকে শুরু করে,

আজ তিনি বিসিসিআই সভাপতি। তবে সৌরভের খেলার জীবন যেমন আকর্ষণীয় তেমনি তার প্রেম জীবন। দীর্ঘদিনের প্রেমিকা ডোনা গাঙ্গুলিকেই,

সহধর্মিনী করেছেন ক্রিকেটের মহারাজ সৌরভ গাঙ্গুলি। আর সৌরভ-ডোনার প্রেম কাহিনী নিয়ে চর্চা দীর্ঘদিনের। এমনকী তাঁদের দাম্পত্য জীবনে পদার্পনের ইতিহাসও নাকি হার মানাবে রূপকথার গল্পকেও। এমনটাই ধারণা রয়েছে মহারাজের অনুগামীদের। আজ সৌরভ গাঙ্গুলির ৪৯ তম জন্মদিন। পাশাপাশি ২৪ বছরের সুখী দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন তারা। আজ সৌরভ গাঙ্গুলির জন্মদিনে ফিরে দেখা যাক তার প্রেমকাহিনী। সৌরভ ডোনার প্রেমের সময়টা অনেক পুরোনো বলতে গেলে কলকাতার পুরোনো প্রেম সৌরভ-ডোনা। যে সময় তাঁরা প্রেম করতেন তখনও সমাজে প্রেমের চল আসেনি। তবে প্রেমিক হিসাবে ডোনার হাত ধরতে একেবারেই ভয় পাননি সৌরভ গাঙ্গুলি। ছোট থেকেই একেঅপরের খেলার সঙ্গী তো ছিলেনই, বলতে গেলেই দুজনের বড় হয়ে ওঠা একই সাথে।

এরপর ছোটবেলার বন্ধুত্বই কখন প্রেমে পরিণত হয় তা বোঝা যায়নি। তবে প্রেম যে ছিল সেটা বুঝেছিলেন সৌরভ নিজে। সেই জন্যই নিজের বাবাকে সেই যুগে সাহস করে জানিয়েছিলেন নিজেদের ভালোবাসার কথা। তারপর আর কি সৌরভের বাবা বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে হাজির হন ডোনার বাড়িতে। অবশ্য ততদিনে সৌরভ গাঙ্গুলি বাংলার যুবরাজ হিসাবে পরিচিতি পেয়ে গেছেন। দুজনের বিয়েতে আপত্তি ছিল না কোনো পরিবারের পক্ষ থেকেই। এরপর ১৯৯৭ সালের ২১শে ফেব্রুয়ারী ধুমধাম করে ক্রিকেটের মহারাজ সৌরভ গাঙ্গুলির সাথে বিয়ে হয় ডোনা গাঙ্গুলির। সেই থেকে কেটে গিয়েছে চব্বিশটা বসন্ত আজও তাদের সংসার সেই একইরকম প্রেমময়। সৌরভ ও ডোনার একটি মেয়েও রয়েছে মেয়ে সানা আর স্ত্রী ডোনাকে নিয়ে বর্তমানে সুখী দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন কলকাতার যুবরাজ সৌরভ গাঙ্গুলি।