শ্রাবন্তীর সাথেই সংসার করতে চায়, কোনো উপায় না পেয়ে অবশেষে আদালতের দ্বারস্থ রোশন

পুরনো তিক্ততা ভুলে গিয়ে এবার নতুন করে শ্রাবন্তীর সঙ্গে সংসার করতে চাইছেন রোশন সিং। “রেস্টিটিউশন অব কনজুগাল রাইটস” ধারায়

দাবি জানিয়ে সোমবার আদালতে মামলা দায়ের করেছেন রোশন। এমনই খবর পাওয়া গেছে। শ্রাবন্তীর তৃতীয় স্বামী হলেন রোশন সিং।

বেশ কয়েকমাস আগে থাকতেই তাদের মধ্যে বিবাদ শুরু হওয়ার কারণে আলাদা থাকতেন তারা। পরিচালক রাজীব বিশ্বাসের সঙ্গে প্রথমবার বিয়ে করেছিলেন শ্রাবন্তী।

তাদের দুজনের ছেলে ঝিনুক। ২০১৬ সালে সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর আবার মডেল কৃষ্ণ ব্রজকে বিয়ে করেন শ্রাবন্তী। সেই বিয়ে ৬ মাস স্থায়ী হয়নি।

এরপর ২০১৯ সালের ১৯ এপ্রিল চণ্ডীগড়ের একটি গুরুদ্বারে গিয়ে রোশন সিং এর সঙ্গে বিয়ে করেন শ্রাবন্তী। গত বছরের নভেম্বর মাস থেকে

রোশন আর শ্রাবন্তী আলাদা থাকছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় দুজন দুজনকে আনফলো করে দেন। দিনে দিনে তাদের মধ্যে তিক্ততা বৃদ্ধি পেতে থাকে।

একে অপরকে কটাক্ষ করে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে বিভিন্ন রকম পোস্ট করতে থাকেন শ্রাবন্তী এবং রোশন। শ্রাবন্তীর ছেলে ঝিনুক

নিজেও রোশনকে কটাক্ষ করে। ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে “বডি বিল্ডারদের মগজে বুদ্ধির অভাব বলে রোশনকে আক্রমণ করেছিলেন তিনি।

কিন্তু পুরনো সব দিক কথা ভুলে গিয়ে আবারও শ্রাবন্তীর সঙ্গে নতুন করে সংসার পাতার স্বপ্ন দেখছেন রোশন সিং। রোশন সিং এর এমন সিদ্ধান্তের কথা শুনে অনেকেরই প্রশ্ন,

ডিভোর্সের পর মোটা খোরপোশ যাতে না দিতে হয় সেই জন্যই কি এই পদক্ষেপ নিয়েছেন শ্রাবন্তীর তৃতীয় স্বামী রোশন? কিন্তু এমনটা

একেবারেই নয় বলেই জানিয়েছেন রোশন। তবে কেন হঠাৎ করে সিদ্ধান্ত বদলাতে রাজি হলেন তিনি, সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

বিধানসভা নির্বাচনের পূর্বে শ্রাবন্তী বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন। এমনকি বেহালা পশ্চিম থেকে বিজেপির হয়ে লড়েছিলেন তিনি। সেই সময় শ্রাবন্তীকে শুভেচ্ছা জানান রোশন।

এবার সোমবার শ্রাবন্তীর সাথে সংসার করতে চেয়ে শেষ পর্যন্ত মামলা করে বসলেন তিনি। যদিও এ বিষয়ে এখনো পর্যন্ত শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।