আনমনে ঘুমিয়ে ছিলেন যুবতী, খাটের পাশ থেকে ফনা তুলে উঠল বিশাল বিষধর সাপ, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

মাটির ঘরের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছে বিশাল আকৃতির একটি সাপ। অথচ একই ঘরে থাকলেও বাড়ির লোকজন কোনভাবেই টের পাননি।

যখন বুঝতে পারলেন যে ঘরের মধ্যে তাদের সাথে একটি সাপ রয়েছে তখন অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে। যদিও তারা আর দেরি না করে

সাপ ধরতে অভিজ্ঞ ব্যক্তিকে ডেকে আনেন, ঘরের মধ্যে ঢুকে থাকা সাপটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়ার জন্য।সাপ মানেই একটি ভ-য়া-ন-ক প্রাণী।

চোখের সামনে সাপ দেখতে পাওয়া মানেই শতহস্ত দূরে সরে যান মানুষ। পৃথিবীর বিভিন্ন প্রজাতির সাপের মধ্যে বেশিরভাগ সাপ বিষধর নয়।

কিন্তু যে কঠিন বিষধর সাপ রয়েছে তাদের বিষ এতটাই মারাত্মক যে, তড়িঘড়ি ট্রিটমেন্ট না পেলে যে কোন সময়ে মানুষের মৃ-”-ত্যু ঘটতে পারে।

তাই সাপের কা–ম-ড় মাত্রই সঙ্গে সঙ্গে যে কোন মানুষকে সবার প্রথমে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া প্রয়োজন। উপযুক্ত চিকিৎসা পেলে বেঁচেও যায় অনেকে।

দিনে দিনে চিকিৎসাবিজ্ঞানের ব্যাপক উন্নতি সাধন হয়েছে। প্রতিদিন নিত্যনতুন আবিষ্কার করে চলেছে বিজ্ঞান। বর্তমানে প্রা-;ণ-ঘা’-তী বিষধর

সাপের বিষ থেকে তৈরি করা হয় জীবনদায়ী ওষুধ। শুনতে খানিকটা অবাক লাগলেও এমনটাই কিন্তু সত্যি। প্রাণ দায়ী ওষুধের প্রস্তুতিতে

সাপের বিষের থেকে উপযুক্ত কাঁচামাল হয়তো আর কিছুই নেই। তাই যে জীবন নেয়, সে জীবন ফিরিয়ে দেয়। তার জলজ্যান্ত প্রমান হলো বিষধর সাপ গুলো।

সাপকে ভয় পায় না এমন মানুষ হয়তো পৃথিবীতে নেই। কিন্তু কিছু কিছু মানুষ এখনও রয়েছেন যারা এই সাপ ধরেই প্রাণের বাজি রেখে জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন।

গ্রামে গঞ্জের বেশকিছু মানুষ বিষধর সাপ গুলিকে ধরে তাদের বিষদাঁত বিক্রি করে দেন। এরপর বিষ ছাড়া সাপগুলো নিয়ে খেলা দেখান।

যতটুকু রোজগার হয় এই দিয়ে তাদের সংসার চলে। তাই কারো কারো জীবন ধারণের অন্যতম হাতিয়ার হিসেবে সাপের অবদান রয়েছে।

এবার ইউটিউবে এমন একটি ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা গিয়েছে যেখানে সুকৌশলে সাপ ধরতে দেখা গিয়েছে এক অভিজ্ঞ ব্যক্তিকে।

আসলে একটি মাটির কুড়ে ঘরের ভিতরে ঢুকে গিয়েছে বিশালাকৃতির বিষধর সাপ। বেড রুমের মধ্যে খাটের নিচে পায়ের সঙ্গে জড়িয়ে বসে ছিল সেটি।

বাড়ির লোকজন টের পেতে সাপ ধরতে অভিজ্ঞ এক ব্যক্তিকে ডেকে আনেন। লাঠি দিয়ে একটু খোঁচা মারতে সাপটি বেরিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

অবশেষে অনেক চেষ্টা করে সাপটিকে হাতের মুঠোয় এনে ফেলেন ওই ব্যক্তি। সাপ ধরার এই দৃশ্য দেখতে প্রচুর জনসমাগম হয় ওই বাড়িতে।

এরপর সাপটিকে নিয়ে তিনি বাইরে আসেন। সাপটিকে বাইরে নিয়ে আসা মাত্রই আশেপাশের প্রতিবেশীরা ষষ্টাঙ্গে প্রণাম

করতে শুরু করেন। কেউ কেউ আবার তারস্বরে কান্না জুড়ে দেন। “নাগ লোক” নামক ইউটিউব চ্যানেল থেকে পোস্ট করা ভিডিওটি

ইউটিউবে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। এরই মধ্যে সাড়ে সাত হাজার মানুষ দেখে নেওয়ার পাশাপাশি, প্রচুর সংখ্যক লাইক পড়েছে ভিডিওটিতে।