সাবান দিয়ে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মূর্তি বানালেন বীরভূমের যুবক! তার অবাক করে দেওয়া প্রতিভা দেখে মজল নেটদুনিয়া, ভাইরাল ছবি

স্যোশাল মিডিয়ায় মাঝেমাঝেই বিভিন্ন ধরনের ভিডিও ভাইরাল হয়। তাতে কখোনো তথ্যপূর্ণ ঘটনা থাকে, আবার হাসিমজার খোঁড়াক কিংবা সম্পূর্ণ,

এন্টারটেইনিং এলিমেন্ট। ভিডিওগুলি দেখে দর্শকরা মজা পায় তাইজন্যেই লাখ লাখ ভিউস আসে। কমেন্ট পড়ে শয়ে শয়ে, শেয়ার হয় দ্রুত।

কোনো কোনো ভিডিও সুপ্ত প্রতিভার আত্মপ্রকাশ ঘটায়। নাচ, গান, আবৃত্তির মাধ্যমে বিপুল সংখ্যক অডিয়েন্সের কাছে পৌঁছে দিতে,

সাহায্য করে এই স্যোশাল মিডিয়াই। মানুষের ট্যালেন্টের কোনো সীমা পরিসীমা নেই। আমরা ভাবতেও পারিনা ট্যালেন্ট কি এবং কত ধরনের হতে পারে। কেউ জিভ দিয়ে কান স্পর্শ করে, সেটা তাঁর ট্যালেন্ট। কেউ ৯২ বছর বয়সে নাচ করতে পারে সেটা তাঁর ট্যালেন্ট। একটি ৫ বছরের শিশু যদি সুরেলা গলায় গান করতে পারে তবে সেটি তাঁর ট্যালেন্ট। অর্থাৎ বোঝাই যাচ্ছে, বয়স ভেদে ট্যালেন্ট আর প্রতিভার নানান রুপ রস গন্ধ রয়েছে। তবে এবার যে ছবিটি ভাইরাল হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে, একটি যুবককে। তাঁর হাতে ধরা একটি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছোট্ট মুর্তি। কিন্তু থেমে যান বন্ধুরা, এই মুর্তি কিন্তু যে সে মুর্তি নয়,

খুব ভালোভাবে খুঁটিয়ে দেখলে বোঝা যাবে, এটি আসলে তৈরি একটি লাইফবয় সাবান দিয়ে। সাবান কেটেকুটে কারিকুরি করে তৈরি করা হয়েছে এই রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে। বলাই বাহুল্য, এই অদ্ভুত ক্ষমতাসম্পন্ন ট্যালেন্টের কদর দিচ্ছেন নেটনাগরিকরা। ইতিমধ্যেই ভাইরাল হতে শুরু করেছে সেই পোস্ট। বর্তমান কলকাতা নামক ফেসবুক পেজ থেকে পোস্ট করা হয়েছে ছবিটি। ৬ মাস আগে আপলোড করা হলেও নতুন করে ভাইরাল হতে শুরু করেছে সম্প্রতি। ইতিমধ্যেই হাজার খানেক মানুষ পোস্টে লাইক করেছেন। কমেন্ট সেকশন ঘাঁটলে দেখা যাচ্ছে, নেটিজনরা প্রশংসায় ভরিয়ে দিচ্ছেন ঐ যুবককে।