খেলা হবে ডিজে গানে তুমুল নেচে সবাইকে তাক লাগাল বৃদ্ধ ঠাকুমা, ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

রাজ্যে একুশের বিধানসভা নির্বাচন ইতিমধ্যেই জোরকদমে শুরু হয়ে গিয়েছে। চতুর্থ দফার নির্বাচনে সমাপ্ত। আর চার দফার নির্বাচন বাকি।

এখনো পর্যন্ত প্রচারে কোন খামতি রাখছেন না তৃণমূল, বিজেপি, সিপিএম, কংগ্রেস থেকে শুরু করে অন্যান্য রাজনৈতিক দল।

যেনতেন প্রকারে বাংলার ক্ষমতায় আসতে সচেষ্ট হয়েছে প্রত্যেককেই। তার জন্য জোর কদমে চলছে নির্বাচনী প্রচার।

নির্বাচনের আগে কেউ কেউ তৃণমূল থেকে বিজেপিতে, তো কেউ আবার বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগদান করেছেন।

তখন শোনা যাচ্ছিল যে, তৃণমূলে নাকি ভাঙ্গন ধরে গিয়েছে। তৃণমূলে থাকা নেতা-মন্ত্রীরা বেশিরভাগই যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে।

কিন্তু তাতেও থেমে থাকেনি তৃণমূল কংগ্রেস। নির্বাচনের আগে থাকতে এখনও পর্যন্ত একের পর এক চমক দিতে প্রস্তুত তারা।

ভোটের কয়েক মাস আগে থাকতে তৃণমূলের সবচেয়ে বড় হাতিয়ার হল বহিরাগত তত্ত্ব। এই বাংলাকে বহিরাগতদের হাতে তুলে দিতে নারাজ তৃণমূল কংগ্রেস।

তবে বর্তমানে তারা বহিরাগত তত্ত্ব আর প্রয়োগ করেন না। যাই হোক না কেন, নির্বাচনী লড়াই চলছে আর চলবে।

একুশের নির্বাচনে যে গানটি তৃণমূলকে উজ্জীবিত করতে সাহায্য করেছে তা হল, “বন্ধু এবার খেলা হবে”।তৃণমূলের মুখপাত্র

দেবাংশু ভট্টাচার্য এর “খেলা হবে” গানটি জা’তি ধ’র্ম বর্ণ এবং রাজনৈতিক রঙ নির্বিশেষে সকলের কাছে বেশ জনপ্রিয়।

তবে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকদের কাছে এই গান যেন বাড়তি অক্সি’জেনের কাজ করে। তাদের কাছে দেবাংশু ভট্টাচার্যের গাওয়া এই গান ব্যাপক জনপ্রিয়।

তৃণমূল কংগ্রেসের নির্বাচনী প্রচার হোক কিংবা জনসভা, সব জায়গাতেই “খেলা হবে” গানটি শুনতে পাওয়া যায়।

বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন জায়গায় যুবক-যুবতীদের এই গানের তালে হাতে দলীয় পতাকা নিয়ে নাচতেও দেখা গিয়েছে।

এই গানটিকে নিয়ে বর্তমান প্রজ’ন্মের উত্তেজনার শেষ নাই। বিজেপি আর সিপিআইএম একইভাবে দু-দুটি গান বার করলেও তৃণমূলের “খেলা হবে” গানের মত এত জনপ্রিয় হয়ে ওঠেনি।

এবার এমন একটি ভিডিও সামনে এসেছে, যা দেখলে কার্যতঃ হত’বাক হয়ে যেতে হবে সকলকে। “খেলা হবে” গানের তালে নাচতে শুরু করেছেন বছর আশির এক বৃদ্ধা।

কোন দিকে হুশ নেই তাঁর। নিজের মনে “খেলা হবে” গানের তালে নেচে চলেছেন তিনি। সেই সময় এক ব্যক্তি তাঁর হাত একটি দলীয় পতাকা ধরিয়ে দেন।

এরপর আরো উৎসাহের সঙ্গে নাচতে থাকেন বৃদ্ধা। আশে পাশে দাঁড়িয়ে প্রচুর মানুষ। কোন দিকে খেয়াল নেই ওই মহিলার।

তিনি নিজের মনে নাচতেই ব্যস্ত। আশে পাশে দাঁড়িয়ে থাকা আমজনতা ওই বৃদ্ধা মহিলার নাচ দেখতে ব্যস্ত। তাঁরাও বেশ উপভোগ করেছেন এই দৃশ্য।

“স্টেটাস কিং” নামক একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রকাশিত এই ভিডিওটিতে প্রচুর সংখ্যক মানুষ লাইক করার পাশাপাশি, কয়েক লক্ষ মানুষ ভিডিওটি দেখে নিয়েছেন।