ক্ষমতায় আসলে ৬০ টাকায় পেট্রল! ভোটের মুখে বড় ঘোষণা বিজেপি নেতার

নির্বা’চনের পূর্বে বড়োসড়ো ঘোষণা বিজেপি নেতা কুম্মানম রাজশেখরনের। কেরলে বিজেপি ক্ষ’মতায় এলে ৬০ টাকা লিটার পেট্রোল এবং দাম ক’মানো হবে ডিজেলের।

তিনি জানান, বিজেপি ক্ষ’মতায় এলে পেট্রোল এবং ডিজেলের জিএসটির আওতায় আনা হবে। জিএসটির আওতায় পেট্রোল ডিজেল আসলে, ষাট টাকা খরচ করলে সাধারণ মানুষ এক লিটার পেট্রোল কিনতে পারবে।

দিন কয়েক আগে পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান আভাস দিয়েছিলেন যে, কেন্দ্র পেট্রোপণ্যকে জিএসটির আওতায় আনতে চায়। তিনি জানিয়েছিলেন, শুরু থেকে কেন্দ্রীয় সরকার পেট্রোল ডিজেলকে জিএসটি কাউন্সিলের আওতায় আনতে চান।

এতে সাধারণ মানুষের মঙ্গল হবে। কিন্তু তার আগেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে জিএসটি কাউন্সিলকে। জিএসটি কাউন্সিলে কেন্দ্রের পাশাপাশি রয়েছেন রাজ্যের প্রতিনিধিরা। তাই রাজ্যের প্রতিনিধিরা বি’রো’ধিতা করতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

পেট্রোপণ্যের ল’ভ্যাংশ রাজ্যের থেকেও বেশি পায় কেন্দ্র। জিএসটির আওতায় পেট্রোপণ্যের মূল্য আনা হলে, কেন্দ্র লাভবান হলেও লভ্যাংশ কমবে রাজ্যের। ২০১৭ সাল নাগাদ জিএসটি চালু হলেও পেট্রোপণ্যকে জিএসটির আওতায় আনা হয়নি।

এর করণ রাজ্য সরকারের বি’রো’ধিতা। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে, বিজেপি নেতা কুম্মানম রাজশেখরণ? নাকি শুধুই নির্বা’চ’নের পূর্বে চমক দিতে এই কথা বললেন বিজেপি নেতা।

কেরল নির্বাচনের পূর্বে ইতিমধ্যেই বড়োসড়ো চমক দিয়েছে বিজেপি। দলের নী’তির বি’রু’দ্ধে গিয়ে কেরল বিজেপির পক্ষ থেকে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে, ই শ্রীধরণের নাম।

৮৮ বছর বয়সি এই মেট্রো ম্যান ই শ্রীধরণ গত সপ্তাহে বিজেপিতে যোগদান করেছেন। গেরুয়া শিবিরের মুখ্যমন্ত্রী প’দপ্রার্থী হওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছিলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার কেরল বিজেপির সভাপতি কে সুরেন্দ্রন জানিয়েছেন, “দলের তরফে মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য শ্রীধরণের নাম প্রস্তাব করা হয়েছে। বাকি প্রার্থীদের নাম শীঘ্রই জানানো হবে।”