গ্রামের বাড়ির উঠানে দুর্দান্ত নাচ নেচে নেট কাঁপাল দুই যুবতী, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

সোশ্যাল মিডিয়া মানেই বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম।টিভি, রেডিও, সংবাদপত্রকে ছাপিয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। আজকাল স্মার্ট ফোন আছে আর সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাক্টিভ নয়,

এমন মানুষ পৃথিবীতে খুঁজে পাওয়া মুশকিল। সকলেই প্রায় সোশ্যাল মিডিয়ার সঙ্গে যুক্ত। কেউ প্রত্যক্ষ ভাবে কেউ আবার পরোক্ষভাবে।

প্রাপ্তবয়স্করা বেশিরভাগই সোশ্যাল মিডিয়ার ইউজার অর্থাৎ তারা প্রত্যক্ষ ব্যবহারকারী। এছাড়া পরোক্ষভাবে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেন অনেকেই।

নাচ সোশ্যাল মিডিয়ার উপজীব্য একটি বিষয়। সোশ্যাল মিডিয়ার চোখ রাখলেই আমরা বিভিন্ন ধরনের নাচের ভিডিও দেখতে পাই। সারা দিনের বেশিরভাগ সময় এই সকল ভিডিও দেখে আমরা কাটিয়ে দিতে পারি।

সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জনপ্রিয়তা অর্জন করা আজকালকার একটি ফ্যাশন হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনেকেই নিজের পরিচয় তৈরি করে নেওয়ার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে থাকে।

যুবক যুবতীদের মধ্যে এই চাহিদা একটু বেশি। প্রতিটা মানুষ কোনো না কোনো প্রতিভা নিয়ে জন্মায়। তাদের মধ্যে থাকে নিজেকে প্রমাণ করার যথেষ্ট দক্ষতা।

একসময় প্ল্যাটফর্ম এর অভাবে এই সকল প্রতিভারা হারিয়ে যেত। এখন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তারা নিজেদের সকলের সামনে মেলে ধরত শিখেছে।

বিভিন্ন প্রতিভার অধিকারী মানুষগুলো আজকাল আর হারিয়ে যাচ্ছে না। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে নিজেদের জনপ্রিয়তা করে তুলছে তারা।

কেউ নাচ, কেউ গান, কেউ আবার বিভিন্ন ধরনের কলা কৌশল রপ্ত করে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে নিজেদের প্রমাণ করছে। গ্রামের মেয়েরাও কোনো দিক থেকে পিছিয়ে নেই।

সেটাই এবার প্রমাণ করে দেখালো দুই যুবতী। নিজেদের অসাধারণ ডান্স পারফর্ম করে মুহূর্তেই ভাইরাল হলো তারা। সম্ভবত বাড়ির কোনো অনুষ্ঠানে ডিজে বক্সের আয়োজন করা হয়েছিল।

সেই ডিজে বক্সের তালেই নাচলো দুজনে। নেই কোনো সাজপোশাকের বাহার। বাড়ির জামাকাপড় পড়েই ডান্স পারফর্ম করেছে দুজনে। পারিবারিক অবস্থা দেখে মনে হয়, তারা প্রাতিষ্ঠানিকভাবে নাচ শেখেনি।

বরং নিজেদের মত করে আর টিভিতে দেখেই তারা নাচ শিখেছে। “এইচ সি কম্পিউটার” নামক এক ইউটিউব চ্যানেল থেকে সাম্প্রতিক এই ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে। সেখানে দেখা গেছে যে, ঘরোয়া অনুষ্ঠানে ডিজে বক্সের তালে ডান্স পারফর্ম করছে দুজন যুবতী।

তাদের ডান্স পারফর্ম ছিল সত্যিই অসাধারণ। নাচ না শিখলেও যে কত ভালো নাচ করা যায় তার প্রমাণ মিলেছে এই ভিডিওটিতে। এখনো পর্যন্ত এই ভিডিওটির দর্শক সংখ্যা সাড়ে নয় মিলিয়নেরও বেশি। কমেন্ট সেকশনে সকলেই যুবতীদের নাচের প্রশংসা করেছে।