অভাবের সংসার! খেতমজুরের কাজ করে সংসার চালিয়েছিলেন মা, ছেলে এখন IPL-র নির্ভরযোগ্য বোলার

বেশ কিছুদিন আগেই শুরু হয়ে গিয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ক্রিকেট টুর্নামেন্ট আইপিএল। চলছে ত্রয়োদশ আসর। আইপিএল চলাকালীন ক্রিকেটের মাঠ থেকে তরুণ ক্রিকেটাররা নিজেদের সবটুকু দিয়ে সাফল্যের চূড়ায় পৌঁছে দেয় এই ক্রিকেট টুর্নামেন্ট কে। একইসঙ্গে উঠে আসে বহু প্রতিভা।

পরবর্তীকালে এদেরই ভারতের জার্সি পড়ে জাতীয় দলের প্রতিনিধিত্ব করতে দেখা যায়। ইতিপূর্বে আইপিএল থেকে উঠে এসেছেন রবীচন্দ্রন অশ্বিন, হার্দিক পান্ডে, ক্রুনাল পান্ডেয়া, জসপ্রীত বুমরাহ সহ বিখ্যাত নামিদামি ক্রিকেটাররা।

খেতমজুর হিসেবে কাজ করে সংসার চালিয়েছিলেন মা, ছেলে এখন আইপিএলের নির্ভরযোগ্য বোলারবেশ কিছুদিন আগেই শুরু হয়ে গিয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ক্রিকেট টুর্নামেন্ট আইপিএল। চলছে ত্রয়োদশ আসর।

আইপিএল চলাকালীন ক্রিকেটের মাঠ থেকে তরুণ ক্রিকেটাররা নিজেদের সবটুকু দিয়ে সাফল্যের চূড়ায় পৌঁছে দেয় এই ক্রিকেট টুর্নামেন্ট কে। একইসঙ্গে উঠে আসে বহু প্রতিভা।

পরবর্তীকালে এদেরই ভারতের জার্সি পড়ে জাতীয় দলের প্রতিনিধিত্ব করতে দেখা যায়। ইতিপূর্বে আইপিএল থেকে উঠে এসেছেন রবীচন্দ্রন অশ্বিন, হার্দিক পান্ডে, ক্রুনাল পান্ডেয়া, জসপ্রীত বুমরাহ সহ বিখ্যাত নামিদামি ক্রিকেটাররা।

ভারতের ক্রিকেট জগতে এরাই মূল্যবান সম্পদ। এবারের আইপিএলে নজর কাড়লেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ফাস্ট বোলার টি নটরাজন। সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ এবং দিল্লি ক্যাপিটালস এর মধ্যে যে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় তাতে অসম্ভব দুর্দান্ত বোলিং করেছেন টি নটরাজন। টি নটরাজন নিজের স্পেলে ২৫ রান দিয়ে ১ উইকেট নিয়েছেন। এরপর সোশ্যাল মিডিয়াতে এই বোলারের বোলিংয়ের চরম প্রশংসা করছেন নেটিজেনরা।

নটরাজনের জন্ম তামিলনাড়ূর চিন্নপামট্টি গ্রামে। ছোট থেকে অভাবের মধ্যে মানুষ হয়েছেন তিনি। তার মা মজদুরি করে দুবেলা-দুমুঠো অন্নসংস্থান করতে হিমশিম খেতেন। কিন্তু চরম দারিদ্র্য নটরাজনের সাফল্যের পিছনে বাধা হয়ে দাড়ালেও দমিয়ে রাখতে পারেনি।

প্রবল পরিশ্রম, গভীর মনোযোগ আর প্রতিভার জোরেই নিজের বোলিংকে সকলের কাছে সমর্থন যোগ্য করে তুলতে পেরেছেন। শুধুই সমর্থনযোগ্য নয়, জনপ্রিয়ও বটে। টেনিস বল ক্রিকেট থেকে সর্বপ্রথম খেলার প্রতি ভালোবাসা জন্মায় নটরাজনের।

কোচ জয়প্রকাশ তাকে টেনিস বলে ক্রিকেট খেলতে দেখে তামিলনাড়ু প্রিমিয়ার লীগে খেলার সুযোগ করে দেন। নিজের জার্সিতে কোচের প্রতি সম্মান জানিয়ে জেপির নাম লেখেন। নটরাজনের পরিবারের তিন ভাই বোন রয়েছে। তাদের পড়াশোনা আর ভবিষ্যৎ যাতে সুনিশ্চিত হয় সেটাই চান তিনি।

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ ২০১৯ সালে নিলামে ৪০ লক্ষ টাকায় নটরাজনকে কিনে নেয়। এবারের আইপিএলে তিনটি ম্যাচের প্রথম একাদশে তাকে মাঠে নামানো হয়েছে। এখনও পর্যন্ত ৩টি উইকেটই নিতে পেরেছেন নটরাজন।

নিজের বোলিং এর দ্বারা সকলকে আকর্ষিত করেছেন তিনি। আইপিএলের টাকায় নিজের বাড়ি বানালেও এখনো গাড়ি কেনেননি তিনি। তার মতে,আগে অত্যাবশ্যকীয় চাহিদাগুলো মেটানোর পর গাড়ি কেনার জন্য এখনও অপেক্ষা করতে রাজি তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here