দৌড়বিদ হিমা দাসকে পুরস্কার অসম প্রশাসনের, বীর কন্যাকে বসানো হল ডিএসপি পদে

আসামের গুয়াহাটির এক দ’রি’দ্র পরিবারের অনন্য নজির সৃ’ষ্টিকারি কন্যা হিমা দাস। ভারতের প্রথম অ্যা’থলিট হিসেবে আইএএএফ অনূর্ধ্ব ২০ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জেতার নজির গড়েছিলেন।

সেই হিমা দাসকেই এবার রাজ্য পুলিশের বড় পদে বসাল অসম সরকার। তাঁকে রাজ্যের ডেপুটি সুপারি’ন্টেন্ডেন্ট পদে বসানো হয়েছে।

বুধবার রাতে মন্ত্রিসভার বৈঠক ডেকেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল। সেখানেই একাধিক গু’রুত্বপূর্ণ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তার মধ্যেই ছিল হিমা দাসের বিষয়টিও।

গরিব পরিবার থেকে উঠে আসা বছর কুড়ির হিমা ট্র্যা’কে নিজের দ্রুত গতির জন্য গোটা দেশে ‘ধিং এক্সপ্রেস’ নামে পরিচিত।

ইতিমধ্যে বহুবার রা’জ্য তথা দেশের নামও উ’জ্জ্ব’ল করেছেন তিনি। আর তাই তাঁকে স’ম্মান জানিয়ে এবার ডিএসপি পদে বসানো হল।

অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল তাঁর মন্ত্রীসভার বৈঠকে জুনিয়র বিশ্বচ্যাম্পিয়ন এই অ্যাথলিটকে রাজ্য পুলিশের ডিএসপি করার সি’দ্ধান্ত নিয়েছেন।

নতুন স’ম্মান পেয়ে উ’চ্ছ্ব’সিত হিমা ট্যুইট করে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্য’বাদ জানিয়েছেন। তিনি লেখেন, ‘এটা একটা বড় স’ম্মান। অসম পু’লি’শে যোগ দেওয়ার জন্য আমি মু’খিয়ে রয়েছি।

আমাকে অসম পু’লিশের ডিএসপি করার জন্য মু’খ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল এবং হিমন্ত বিশ্বশ’র্মাকে আন্ত’রিক ধ’ন্যবাদ জানাচ্ছি।

এটা আমাকে বি’রাট অ’নু’প্রে’রণা জোগাবে। আমার রাজ্য এবং দেশের হয়ে কাজ করার জন্য আমি মুখিয়ে রয়েছি। জয় হিন্দ।’

শুধু নয়, রাজ্যের ক্রী’ড়ানীতিতেও ব’দল আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্ত্রিসভা। বৈঠকে ঠিক হয়েছে, এবার থেকে রাজ্যের ক্রী’ড়াবিদদের ক্লাস-১ এবং ক্লাস-২ অফিসার পদে নিয়োগ করা হবে তাকে।

পুলিশ, আবগারি, পরিবহণ-সহ বিভিন্ন দপ্তরে তাঁদের পো’স্টিং হবে। হিমা যেমন অসম পু’লি’শের ডিএসপি পদে নিয়োজিত হতে চলেছেন, ঠিক রাজ্যের অলি’ম্পিক, এশিয়ান গেমস এবং কমনওয়েলথ গেমসে পদকজ’য়ীদের নিয়োগ করা হবে ক্লাস-১ অফিসার হিসেবে।

এমনটাই জানিয়েছেন অসমিয়া সরকারের মুখপাত্র তথা শিল্পমন্ত্রী চন্দ্রমোহন পাটোয়ারি। এদিকে, অসম সরকারের এই সি’দ্ধান্তের প্র’শং’সা করে টুইট করেছেন কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজু।