ঈশর প্রদত্ত কন্ঠ! খুবই সাধারণ পোষকে অসাধারণ সুরে গান গাইল গৃহবধূ, ভিডিও ভাইরাল

ইন্ডিয়ান আইডল নামক রিয়েলিটি শোয়ের মঞ্চ অনেকের কাছেই যেন স্বপ্নের মত। পরিচিতি লাভের জন্য এবং নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে

অনেকেই নিজের স্বপ্নপূরণের উদ্দেশ্যে ছুটে আসেন ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চে। ইন্ডিয়ান আইডল নামক রিয়েলিটি শোয়ের মঞ্চে সারাদেশ জুড়ে

বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রতিযোগিরা অংশগ্রহণ করে থাকেন। এই মঞ্চে এসে নিজেকে প্রমাণ করার সুযোগ হাতছাড়া করা সত্যিই অনুচিত।

ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চের নজরকাড়া পারফরম্যান্স সত্যিই অনবদ্য। ইন্ডিয়ান আইডলের ১২ তম সিজনের মঞ্চে অংশগ্রহণ করেছিলেন

মুজাফফরপুরের একজন বিবাহিত এবং সংসারী মহিলা। তাঁর নাম হলো ফারমনি নাজ। ইন্ডিয়ান আইডল ২০২০ এর অডিশন রাউন্ডে অংশগ্রহণ করার

এই মহিলাকে অনেকেই খুব ভালোভাবেই জানেন। ওই মহিলার ইতিপূর্বে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের গানের জন্য খুবই বিখ্যাত ছিলেন।

বিবাহিত সংসারিক মহিলা হওয়ার পাশাপাশি তিনি একজন মা। মায়ের ভালোবাসার কাছে যেকোনো ধরনের বড় প্রতিযোগিতা তুচ্ছ হয়ে যায়।

ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চে এসে তেমনই এক অভিজ্ঞতা হয়েছিল ফারমনি নাজের। ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চে থাকি তিন বিচারক নেহা কক্কর,

বিশাল দাদলানি এবং হিমেশ রেশমিয়া, ফারমনি নাজের গান শুনে আনন্দে আপ্লুত হয়ে গিয়েছিলেন। সংসারী মহিলার এত সুন্দর পারফরমেন্স দেখে

প্রচুর হাততালিতে ভরে গিয়েছিল চারিদিক। তিনজন বিচারক ওই মহিলার গান গাওয়া দেখে খুবই আনন্দিত হয়েছিলাম।

তবে ফারমনি ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চ ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য হয়ে ছিলেন। এর পিছনে রয়েছে এক করুন কাহিনী।

যা হার মানবে যে কোনো সিনেমার গল্পকে। একেবারে নিরুপায় হয়ে ফিরে যেতে হয়েছিল ফারমনিকে। কিছুই করার উপায় ছিল না তার।

আগেই বলেছি, ফারমনি একজন বিবাহিত মহিলা। পাশাপাশি তিনি একজন মা। মাত্র দুই বছরের ছেলে রয়েছে তার ঘরে।

ছোট্ট ছেলেটির অপারেশনের জন্য ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চ ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য হয়েছিলেন ফারমনি নাজ। উত্তরপ্রদেশের মিরাটে একটি বেসরকারী হাসপাতালে

অপারেশন করার কথা ছিল ছোট্ট ছেলেটির। কারণ সে কথা বলতে পারে না। এমতাবস্থায় ছেলের চিকিৎসা এক মায়ের কাছে ইন্ডিয়ান আইডলের প্রতিযোগীর থেকেও অধিক গুরুত্ব পেয়েছিল।

নিজের একমাত্র সন্তানের চিকিৎসা চলছে, আর সেখানে মা থাকবে না, তাই কি হয়। ফারমনি যখন ইন্ডিয়ান আইডল শোতে প্রতিযোগী হিসেবে ছিলেন,

তখন ডাক্তাররা তাকে ছেলের অপারেশন করার জন্য জিজ্ঞাসা করেছিলেন। এক কথায় রাজি হয়ে গিয়েছিলেন ফারমনি। দুবার ভেবে দেখেননি তিনি।

ছেলের অপারেশন হবে বলে, ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চ ছেড়ে একেবারের ছেলের কাছে ফিরে যান ফারমনি। মিরাটের হাসানপুর গ্রামে বছর তিনেক আগে বিয়ে হয়, ফারমণির।

দুই বছর আগে তাদের একটি ছেলে হয়। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত সন্তানের জন্মের পর সন্তানের অবস্থা সঙ্কটজনক দেখে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন গ্রহণ করেন নি মা এবং ছেলেকে।

কোন উপায় না দেখে মাত্র এক মাস বয়সী শিশু সন্তানকে কোলে নিয়ে নিজের বাপের বাড়ীতে ফিরে আসতে বাধ্য হন ফারমণি।

ছোট থেকে গান গাইতে ভালোবাসা ফারমনি দুই প্রতিবেশী সহযোগিতায় সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের গ্রাম পোস্ট করেন।

“আশু বচ্চন সিঙ্গার” একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে পোস্ট করা হয়েছে ফারমনির একটি গানের ভিডিও। ভিডিওটিতে দেখা গিয়েছে,

ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চ ছাড়ার পর বাড়িতে গান গাইছেন তিনি। l অনেকেই সেই ভিডিও মোবাইল ক্যামেরায় রেকর্ড করে নিয়েছেন।

ইতিমধ্যেই তার এই ভিডিও ৪ লক্ষেরও বেশি মারণ থেকে নেওয়ার পাশাপাশি, ১৭ হাজার লাইক পড়েছে ভিডিওটিতে।