“নেতা হতে হলে ভোটার হতে হবে”, প্রশান্ত কিশোরকে কড়া আক্রমণ দিলীপ ঘোষের

ভবানীপুরের ভোটার হওয়া নিয়ে ‌ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

প্রশান্ত কিশোরকে আ”ক্রমণ করে দিলীপ ঘোষ বলেন, উনিতো তৃণমূলে আগে থেকেই নাম লিখিয়েছেন। ভোটার হওয়ার বিষয়টা এতদিনে জানা গেল।

আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর ভবানীপুর বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন। সেখানে তৃণমূলের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ রবিবার সকালে ইকো পার্কে প্রাতঃভ্রমণে এসে তিনি জানান, “ভবানীপুরে ভোটার লিস্টে পিকের নাম ও অভিষেকের বাড়ির ঠিকানা রয়েছে। আমরা জানি, উনি তৃণমূলের নেতা ছিলেন। এখন নেতা হতে হলে ভোটার হতে হবে। আমার মনে হয়, সেইসময় হয়েছিলেন। এবারে জানা গেল।”

গৌতম একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বহিরাগত তত্ত্বকে হাতিয়ার করে বিজেপিকে ক্রমাগত আক্রমণ ঘাসফুল শিবির। বিহারের বাসিন্দা প্রশান্ত কিশোরের ভবানীপুরের ভোটার লিস্টে নাম থাকা নিয়ে তৃণমূলকে পাল্টা আক্রমন করে বসল বিজেপি।

বিজেপির প্রশ্ন, প্রশান্ত কিশোর কিভাবে বাংলায় অন্তর্গত হলেন। বলিউড অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী গত একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে বাংলায় ভোটার তালিকায় নাম তোলেন।

ভোটের আগেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। এমনকি ভোটের প্রচার করেছেন বিজেপির হয়ে। ভোট-পরবর্তী হিংসায় হাঁসখালিতে তিন বিজেপি কর্মীর খুনের ব্যাপারে দিলীপ ঘোষ জানান, “পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিটা অপরাধীর হয়ে গিয়েছে।

যারা সমাজবিরোধী ছিল, সিপিএম যাদের ব্যবহার করত, তাঁরা তৃণমূলের নেতা হয়েছেন। এমন অপরাধীকরণ হয়ে গিয়েছে যে বিহারের মতো অবস্থা হয়ে গিয়েছে। কোনও আইন শৃঙ্খলা নেই। পুলিশ কারো এফআইআর নেয় না”।