খালি গলায় দুর্দান্ত ভঙ্গিতে গান গেয়ে তোলপাড় কলেজ ছাত্রী, প্রশংসার ঝড় নেটদুনিয়ায়

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়াকে অনেকেই তাদের প্রতিভা প্রদর্শনের মঞ্চ হিসেবে ব্যবহার করছে।আমাদের স্মৃতিতে এমন অনেক মানুষ আছে যাদের প্রতিভা থাকলেও উপযুক্ত সুযোগের অভাবে তা সুপ্ত থেকে যায়,

কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে বর্তমানে সেই অসুবিধা দূর হয়েছে। বর্তমানে প্রত্যেককেই তাদের প্রতিভাকে বিশ্বের দরবারে প্রদর্শন করতে পারছেন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে।

এর সাথে এগিয়ে এসেছে অনেক সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যম,ফেসবুক ইউটিউব এর অনেক চ্যানেল এসব মানুষের প্রতিভা যাতে সবার সামনে আনা যায় তার চেষ্টায় রয়েছেন ব্রতী।

বিভিন্ন ফেইসবুক পেইজ এই কাজে এগিয়ে এসেছেন। এর মধ্যে এমন একটি পেজ হল “ওয়ান বিট মিউজিক”।এই পেজটিতে বিভিন্ন মানুষের নানারকম প্রতিভা সকলের সামনে আনার জন্য গ্রুপের সদস্যরা সদাই লেগে রয়েছে।

কখনোবা ছোট্ট বাচ্চার টাইটানিক সিনেমার “ইন দা নাইট ইন মাই ড্রিমস” গানটির পিয়ানো প্রদর্শন, কখনো বা কোন তালিম ছাড়াই ভবঘুরে ছোট মেয়ের অসাধারণ নাচ,

বিভিন্ন প্রতিভা যা মানুষকে সব সময় তাক লাগিয়ে দিয়েছে। এই পেজ এর ভিডিওগুলি সবসময়ই ভাইরাল হয়। সম্প্রতি ভাইরাল হলো এমন একটি ভিডিও।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে একটি ক্লাস রুমের ছবি, পেছনে রয়েছে বোর্ড, অনেক বেঞ্চ। তবে কিসের ক্লাসরুম সেটি বোঝা না গেলেও কিছু স্টুডেন্ট ক্লাস রুমটিতে বসে আছেন।

তাদের মধ্যে একটি মেয়ের গলায় শোনা যাচ্ছে অপূর্ব গান”মেরে নাজরো মে তেরে সপ্নে”।অত্যন্ত সাধারণ ভাবে আড়ম্বরহীন বাদ্যযন্ত্র ছাড়া খালি গলায় মেয়েটির গান সকলকে করেছে মুগ্ধ।

তার অসাধারণ সুর ও মহিমায় মানুষ হয়েছে অবাক। মেয়েটি একা নয় তার সাথে পরে যোগ দিয়েছে তার এক বন্ধু গান গাওয়ার জন্য।

ছেলেটির এবং মেয়েটির অপূর্ব ডুয়েটে মুগ্ধ হয়ে উঠেছে পুরো সোশ্যাল মিডিয়া। গানটি রণবীর কাপুর ও দীপিকা পাড়ুকোন অভিনীত “তামাশা” সিনেমার কিংবদন্তি শিল্পী অলকা ইয়াগনিক ও অরিজিৎ সিং-এর গাওয়া গান।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, প্রত্যেকটি বন্ধুবান্ধব ছেলেও মেয়েটির গান কে সমর্থন করছে, তারা রীতিমতো উপভোগ করছে তাদের গান।

ছেলেটি ও মেয়েটির গলা সত্যিই অপূর্ব, এত সাধারণভাবে গান গাইতে কোনো প্রফেশনাল সিঙ্গার দুইবার ভাববে, কিন্তু মেয়েটিকে ছেলেটি অপূর্ব সুন্দর ভাবে গানটি সকলের সামনে নিজেদের মতো করে পরিবেশন করেছে। নেটিজেনরা মুগ্ধ তাদের পারফরমেন্সে।

সোশ্যাল মিডিয়ার সত্যি এটাই। এদের মতই অনেক প্রতিভা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে মানুষের সামনে আসতে পেরেছে, ভবিষ্যতে এমন আরও প্রতিভা যেন আমরা দেখতে পাই, এই আশাই করি আমরা।