একসাথে দুই বোনকে বিয়ে করে শাশুড়ির হাতে বেধড়ক মা’র খেল বর, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

কতই রঙ্গ দেখি দুনিয়ায়! সত্যিই এই পৃথিবীর বুকে যে কত ঘটনা সারা দিনরাত ঘটে চলেছে তা আর বলার অপেক্ষা থাকে না।

এমন একটা সময় ছিল যখন এসব ঘটনা সম্পর্কে আমরা জানতেও পারতাম না। বর্তমানে যেহেতু সোশ্যাল মিডিয়া এসে গিয়েছে, তাই পৃথিবীর কোন প্রান্তে কি ধরনের ঘটনা ঘটছে

তার সবটাই আমরা জানতে পারছি সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে। এবার এমন এক ঘটনা ঘটল যা দেখে হাসতে হাসতে পাগল হয়ে যাওয়ার জোগাড় সকলের।

একই বাড়ির দুই বোনকে বিয়ে করল এক যুবক। দুই বোনকে কার্যত সিঁদুর পরিয়ে, মালাবদল করে, বিয়ে করে শ্বশুরবাড়ি গেল সে। শ্বশুরবাড়ি থেকে শাশুড়ি বেরিয়ে এসে ঘটনার কথা শুনে তাজ্জব বনে যায়।

রেগে অগ্নিশর্মা হয়ে যান তিনি। শাশুড়িকে প্রণাম করতে যেতেই নতুন জামাইকে তিনি প্রশ্ন করেন, সে কে আর কাকেই বা বিয়ে করেছে। নতুন জামাই একেবারে বিজ্ঞের মত জবাব দেয়, সে দুই বোনকেই বিয়ে করেছে।

এরপর একটা জামাই দুই বোনকে বিয়ে করেছে কেনো জানতে চাইলে জামাই জানায়, সে দুজনকেই ভালোবাসতো। এরপর ওই মহিলা দুই বোনকে রেগে মারতে যায়।

সেই সময় বাধা দেয় জামাই সেজে থাকা ওই যুবক। সে স্পষ্ট জানায়, দুই বউকে নিয়ে বাড়িতে যাবার মুখ নেই বলেই শ্বশুরবাড়িতে এসেছে জামাই।

জামাই জানায়, তার পুকুর আছে। সে আবার টিকটক করে। তখন শাশুড়ি মা বলে, টিকটক করে যদি সংসার চলে তাহলে দুজনকে নিয়ে যাও।

এরপর শাশুড়ি মার রেগেমেগে দুই মেয়ে বউ জামাইকে চড় থাপ্পড় মারতে মারতে বাড়ি থেকে বের করে দেন। ছোট থেকে ছেলে মেয়েকে মানুষ করে তারা শেষকালে এমন ধরনের প্রতিদান দেবে ভেবেই পাইনি বাবা-মা।

প্রচন্ড রেগে গিয়ে তিনি দুই মেয়েকে মারতে শুরু করেন। পাশাপাশি থেকে পাড়া-প্রতিবেশিও চলে আসে এই কাণ্ড দেখে। তাদের মধ্যস্থতায় কোনরকমে ব্যাপারটা মেটানোর চেষ্টা করা হয়।

তখন আসল কথা স্বীকার করলো জামাই। যখন পরিস্থিতি হাতের বাইরে বেরিয়ে যাচ্ছে তখন এবার আসল কথা প্রকাশ করল দুই মেয়েকে বিয়ে করা নতুন জামাই।

সে জানালো, সে কাউকেই বিয়ে করেনি। বরং সে একজন ইউটিউবার। বিয়ে করার এই নাটক করে সে প্রাঙ্ক ভিডিও বানাচ্ছে। মানুষকে বোকা বানানোর জন্যই এই কাজ।

ভিডিওটি ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে ইউটিউবে। “প্র্যাঙ্কবাজ অয়ন” নামক একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে সাম্প্রতিক পোস্ট করা এই ভিডিওটি ১ মিলিয়ন দর্শক ইতিমধ্যেই দেখে নিয়েছেন।