জন্ম নিলো ৮ পা যুক্ত ছাগলছানা দেখে হতবাক স্থানীয় বাসিন্দারা! ভিডিও তুমুল ভাইরাল

স্যোশাল মিডিয়ায় মাঝেমধ্যেই ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায়।তাতে তেমন হাসি মজার খোড়াক থাকে,তেমন‌ই থাকে সুপ্ত প্রতিভার আত্মপ্রকাশ‌ও।আবার কখোনো অবিশ্বাস্যকর ঘটনার বিবরণ‌ও থাকে।

পশুপাখির মজাদার কার্যকলাপ খুব সহজেই মানুষের মনে জায়গা করে নিতে পারে। এই যেমন কিছুদিন আগে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল যেখানে দেখা গেছে একটি গোরু ছাদ,

থেকে ঝাঁপ দিচ্ছে। গোরুর পক্ষে ছাদে ওঠার কিভাবে সম্ভব তার নিয়ে মাতামাতি হয়েছিল স্যোশাল মিডিয়ায়। আবার ছেলেদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ফুটবল খেলতেও দেখা গেছে গোরুকে।

এমনকি বাঁদরকে অবিকল মানুষের মতো বার্গার খেতে দেখে তাজ্জব বনেছে নেটিজেনরা। তবে এবার কোনো কার্যকলাপের ভিডিও নয়, গোটা ছাগল নিয়েই শোরগোল পড়েছে স্যোশাল মিডিয়াতে। বাংলাদেশের ইশ্বরদী নামক উপজেলার মুলাডুতিতে জন্ম নিল এক আশ্চর্য আটপেয়ে ছাগল। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। শোনা যায়, গত ২৫ মে মহম্মদ সিদ্দিকি আলি মোল্লা নামক আদিবাসী ইউনিয়নের বাড়িতে এক ছাগল ঐদিন সকালে তিনটি শাবকের জন্ম দেয়। একটি জন্মানোর সঙ্গে সঙ্গে মারা যায় এবং বাকি দুটির মধ্যে একটি আট পেয়ে এবং দুই পশ্চাৎদেশ বিশিষ্ট। ছাগলটিকে দেখে অবাক বনে যান ছাগলের মালিক সিদ্দীক আলি। পাড়াপড়শি জড়ো হয়ে যায় এই আশ্চর্য্য ছাগলছানাকে দেখতে। ইতিমধ্যেই একজন ছবি তুলে তা স্যোশাল মিডিয়াতেও পোস্ট করে দেন। ভিডিও করে পোস্ট করেছে জাস্ট ইন টেন ধামক ইউটিউব চ্যানেল। যার জেরে নেটদুনিয়াতেও ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে নবজাতক ছাগশিশু‌, স্বভাবত‌ই অত্যাশ্চর্য এবং অলৌকিক বিষয়টি নিয়ে চর্চা ও জলঘোলা শুরু হয়েছে। তবে যাই হোক আপাতত তারা সুস্থ রয়েছেন।