“শিক্ষা-ফিক্ষা কিছুই হবে না, সব ডকে উঠবে”, স্কুল বন্ধ নিয়ে মন্তব্য অনুব্রতর

রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ক”রো”না সং”ক্র”মণ রুখতে আজ থেকে বিধি-নিষেধ জারি করা হয়েছে সারা রাজ্য জুড়ে। রাজ্যের সব স্কুল-কলেজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আজ অর্থাৎ ৩ জানুয়ারি থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আর এই নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে বিতর্কে জড়ালেন বীরভূম জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল।

তাঁর কথায়, “ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষা-ফিক্ষা কিছুই হবে না। সব ডকে উঠবে”। এই মন্তব্য করে বিতর্কে জড়ালেন বীরভূম জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। স্কুল কলেজ বন্ধ করা প্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “কো”ভি”ডের হাত থেকে রাজ্যকে বাঁচাতে গেলে বিধিনিষেধ জারি করতে হবে।

এছাড়া কোনও উপায় নেই। বাচ্চা পড়ুয়াদের করোনা হয়ে গেলে সমস্যা আরও বেড়ে যাবে। তবে বাড়িতে বসে পড়াশোনা হয় না। স্কুলে ছেলেমেয়েদের যেভাবে পড়ানো সম্ভব, বাড়িতে তা সম্ভব নয়। এতে ছেলেমেয়েদের শিক্ষা ডকে উঠে যাবে।”

বোলপুরে তৃণমূলের জেলা কমিটির বৈঠকে আয়োজিত এক সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত হয়ে অনুব্রত মণ্ডল এই মন্তব্য করেছেন। যদিও জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা জানাচ্ছেন, অনলাইন এবং অফলাইন পড়াশোনার মধ্যে পার্থক্য বোঝাতে গিয়েই এরকম মন্তব্য করেছেন অনুব্রত মণ্ডল।

যদিও তৃণমূলের অন্যান্য নেতাদের এই সাফাই মানতে নারাজ বিজেপি। বীরভূমের বিজেপির সাংগঠনিক জেলা সভাপতি ধ্রুব সাহা অনুব্রত মণ্ডলের মন্তব্য প্রসঙ্গে বলেন, “তৃণমূলের জেলা সভাপতি সত্যি কথাটাই বলেছেন, কোভিডের আগে থেকেই রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থাকে ভেঙে দেওয়া হয়েছে। এই পরিস্থিতির জন্য রাজ্য সরকারই দায়ী”।