আর্থিক অনটনে আদিত্য! রোজগার না করলে বিক্রি করতে হবে বাইক

মাত্র কিছুদিনের মধ্যেই সংসার করতে চলেছেন আদিত্য নারায়ন। এবার বিয়ের আগেই নিজেকে দেউলিয়া বলে ঘোষণা করলেন তিনি। ব্যাঙ্ক ব্যালান্স বলতে পরে রয়েছে মাত্র ১৮ হাজার টাকা।

লকডাউনের জেরে গত কয়েক মাস ধরে কোনও কাজ ছিল না। সংসার চালাতে নিজের সমস্ত সঞ্চয় শেষ করে ফেলেছেন আদিত্য। উদিত নারায়ণের একমাত্র পুত্র এমনটাই।

নয়ের দশকে কুমার শানুর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে গান গেয়েছেন উদিত নারায়ন। বাবার মতই গানের জগতে বিচরণ করেই ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন একমাত্র পুত্র আদিত্য নারায়ন।

“রঙ্গিলা”, “পরদেশ”, “জব প্যায়ার কিসিসে হোতা হ্যায়”, সহ বেশ কিছু ছবিতে শিশু অভিনেতা হিসেবে কাজ করেছেন তিনি। বড় হয়ে “শাপিত” সিনেমায় নায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে চাইলেও সফল হননি তিনি।

“গলিও কি রাসলীলা রামলীলা” এবং সাম্প্রতিক “দিল বেচারা”য় প্লে-ব্যাক সিংগার হিসেবে কাজ করেছেন আদিত্য নারায়ন। জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো,”ইন্ডিয়ান আইডল” এ সঞ্ছালক হিসেবেও কাজ করেছেন তিনি।

 

প্রেমিকা শ্বেতা আগরওয়ালের সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয়ে গিয়েছে তার। তবে সেই বিয়ের অনুষ্ঠান সারতে গেলে তার নিজের বাইকটিকে বিক্রি করতে হবে বলে জানিয়েছেন আদিত্য। তার অ্যাকাউন্টে পড়ে রয়েছে মাত্র ১৮ হাজার টাকা।

ক’রো’না আবহে দেশজুড়ে দীর্ঘ লকডাউনে বিপর্যস্ত সকলেই। বিনোদন জগৎও ছাড় পায়নি। “বালিকা বধু” ধারাবাহিকের পরিচালক কে রাস্তায় ঘুরে সবজি বিক্রি করতে গিয়েছে। সালমান-শাহরুখের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করা অভিনেতা জাভেদ হায়দার ঠেলা নিয়ে সবজি বিক্রি করেছেন।

এই পরিস্থিতি আরও বেশি দিন চললে মানুষকে খিদের তাড়নায় মৃ’-ত্যু’-বর’ণ করতে হবে বলে জানিয়েছেন আদিত্য নারায়ন। অক্টোবর মাস থেকে তিনি যদি কোনও কাজ শুরু না হলে, তার পরিস্থিতি কি হবে সেই নিয়ে চিন্তায় রয়েছেন আদিত্য।